মুসলিম হয়েও জান্নাতে যাবেন না যারা

যারা অমুসলিম জাহান্নাম তো তাদেরই জন্য। কিন্তু মুসলমানদের মধ্যেও এরকম বহু হতভাগ্য মানুষ আছে যারা যারা তাদের কৃতকর্মের জন্য  জান্নাতে যাওয়ার সৌভাগ্য থেকে বঞ্চিত হবে।রাসূলুল্লাহ(ﷺ)এর  বিভিন্ন হাদিস থেকে এরকম ১৭ টি শ্রেণীর ব্যক্তির কথা আজ আমরা উল্লেখ করব,যে ১৭ শ্রেণির ব্যক্তি মুসলমান হয়েও জাহান্নামে যাবে। 

Mar 29, 2024 - 20:07
Apr 19, 2024 - 09:41
 0  5
মুসলিম হয়েও জান্নাতে যাবেন না যারা
  1. অবৈধভাবে হারাম পথে উপার্জন করে যে ব্যক্তি দেহ গঠন করেছে ওই দেহ জান্নাতে প্রবেশ করবে না।ওই দেহের জন্য জান্নাত হারাম,সে যতই ভালো কাজ করুক না কেন তার দেহ যদি হারাম উপার্জন দিয়ে তৈরি হয় তাহলে সেই দেহ জান্নাতে প্রবেশ করবে না।                 হজরত জাবের ইবনে আবদুল্লাহ (রা.) থেকে বর্ণিত, রসুলুল্লাহ (ﷺ) ইরশাদ করেছেন, যে দেহ হারাম খাদ্য দ্বারা লালিত-পালিত হয়েছে, তা জান্নাতে প্রবেশ করবে না। (সুনানে বায়হাকি : ৫৫২০)

  2. আত্মীয়তা সম্পর্ক ছিন্নকারী ব্যক্তি,যেকোনো  অজুহাতে হোক না কেন নিজের ভাইয়ের সাথে,নিজের বোনের সাথে,মায়ের সাথে,বাবার সাথে,চাচার সাথে,ফুফুর সাথে,মামার সাথে,খালার সাথে,চাচাতো ভাইবোনদের সাথে,এক কথায় রক্ত সম্পর্কীয় যত আত্মীয় আছে তাদের সাথে,এমনকি শশুর বাড়ির লোকজন আছে কোন যুক্তিসঙ্গত কারণ ছাড়া তাদের সাথেও আপনি সম্পর্ক ছিন্ন করলেন আত্মীয়র সাথে যে ব্যক্তি সম্পর্ক ছিন্ন করে এ ব্যক্তির জন্য জান্নাতে প্রবেশ এর সুযোগ নাই।                                                                  হজরত জুবাইর ইবনে মুতইম (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসুলুল্লাহ (ﷺ) ইরশাদ করেছেন, আত্মীয়তার সম্পর্ক ছিন্নকারী ব্যক্তি জান্নাতে প্রবেশ করবে না। (সহিহ বুখারি : ৫৫২৫)

  3. তৃতীয়ত মুসলিম হয়েও যে ব্যক্তি জান্নাতে যেতে পারবে না তিনি হলেন ওই ব্যক্তি যে তার প্রতিবেশী কে কষ্ট দেয়।যে ব্যক্তি প্রতিবেশীকে কষ্ট দেয় সে ব্যক্তি জান্নাতে যাবে না।

  4. মা-বাবার অবাধ্য সন্তান যে সন্তান তার মা-বাবার ন্যায্য নির্দেশকে অমান্য করে এই সন্তানের জন্য জান্নাত নিষেধ।সে যত নেক আমল করুক সে যত ভালো কাজ করুক যত নামাজ পড়ুক কোন ফায়দা নেই তার জান্নাতে যাওয়ার সুযোগ নাই।যদি সে মা-বাবার নির্দেশকে অমান্য করে।আল্লাহ এবং তাঁর রাসূল(ﷺ)এর পরে আল্লাহর জমিনে যদি কারো নির্দেশ মানা জরুরী হয় বাধ্যতামূলক হয় তারা হলো মা এবং বাবা।যদি তারা আল্লাহর নির্দেশের বাইরে যদি কিছু করতে বলে অন্যায় কিছু করতে বলে তাহলে সেটা মানা যাবে না।অযৌক্তিক কিছু করতে বলল সেটা মানাা যাবে না।কিন্তু  যৌক্তিক সংগত যত নির্দেশ করবে সেটা আপনাকে মানতে হবে।আর যদি সেটা মানা আপনার জন্য অসম্ভব হয় সাধ্যের বাইরে হয় তাহলে তো কিছু করার নাই তবে কোন অবস্থাতেই ব্যবহার খারাপ করা যাবে না।

  5. অশ্লীল ভাষায় কথা বলেছে গালিগালাজ করে যে  কথায় কথায় আজেবাজে মন্তব্য করে এবং উগ্র মেজাজি মানুষকে সবসময়ই দমাইয়া রাখার চেষ্টা করে সব সময়  যে উপরে থাকার চেষ্টা করে সে ব্যক্তি জান্নাতে যাবে না। 

     

  6. মুসলমান হয়েও যে ব্যক্তি জান্নাতে যাবে তার মধ্যে একজন হল সেই সকল শাসকেরা সেই সকলকে  নেতারা যারা তাদের প্রজাদেরকে তার অধীনস্থ লোকদেরকে ধোকা দেয়।তো  সেই সকল শাসকেরা জান্নাতে যাবে না যারা তাদের অধীনস্থদেরকে ধোকা দেয় কে ধোকা দেয়।

  7. অন্যের সম্পদ যে আত্মসাৎ করে সে ব্যক্তি জান্নাতে যাবে না।যেকোনো মানুষের হক মেরে আপনি টাকা উপার্জন করলেন,যেভাবেই হোক সেটা ধোকা দিয়ে হোক,অথবা বাটপারি করে হোক যেভাবেই হোক না কেন যদি কেউ ক্ষমতার দাপটে মানুষের হক মেরে খায় সেই ব্যক্তি জান্নাতে যাবে না।

  8. উপকার করেও যে ব্যক্তি খোটা দেয় এই ব্যক্তি জান্নাতে যাবে না।

  9. চোগলখোর ব্যক্তি অর্থাৎ যে ব্যক্তি  একজনের কথা আরেকজনের কাছে বলে সবার কাছে ভালো থাকার চেষ্টা করে এরা সমাজের ঝগড়া ফাসাদ লাগানোর জন্য মূল ভূমিকা রাখে।এই ব্যক্তি জান্নাতে যাবে না।

  10. অন্যের পিতা কে  এ যে নিজের পিতা হিসেবে পরিচয় দেয় অনেক পালক পুত্র আছে যারা জন্মদাতা বাবাকে বাবা বলে পরিচয় দেয় না।যে লালন পালন করে তাকে বাবা হিসেবে পরিচয় দেয়।যে ব্যক্তি অন্যের পিতা কে নিজের পিতা হিসেবে পরিচয় দেয় সে ব্যক্তি জানাতে যাবে না। 

  11. অহংকার কারী,গর্বকারি,যে ব্যক্তি খুব অহংকার করে দাপট দেখায় অথবা মনে মনে নিজেকে বড় মনে করে এই হতভাগ্য মানুষ যত ভাল মানুষই হোক সে মুসলমান হয়েও জান্নাতে যেতে পারবে না।

  12. যে ব্যক্তি মুসলমান হয়েও জাহান্নামে যাবে সে ব্যক্তি মধ্যে 12 নাম্বার শ্রেণীর লোক হচ্ছে যে ব্যক্তি রাসূলুল্লাহ(ﷺ) এর নাফরমানি করে।যারা রাসূলুল্লাহ(ﷺ) এর নির্দেশ অমান্য করে, সেই ব্যক্তি জান্নাতে প্রবেশ করবে না।

  13. যে ব্যক্তি মুসলমান হয়েও জাহান্নামে যাবে সেই ব্যক্তির মধ্যে 13 নম্বর শ্রেণীর ব্যক্তি হলে ওই সকল মহিলা যে মহিলা কথায় কথায় স্বামীর কাছ থেকে তালাক চাই।আমাদের মা-বোনদের ভিতরে অনেকেরই চরিত্র আছে যারা কথায় কথায় স্বামীর কাছ থেকে তালাক চাই।শয়তানের  সবথেকে প্রিয় কাজ যে কাজে শয়তান সবথেকে বেশি খুশি হয় সেটি হলো একটি দাম্পত্য জীবনে যখন বিচ্ছেদ ঘটে যায়। 

  14. দুনিয়ার উদ্দেশ্যে যারা ইলম অর্জন করে।কোরআন হাদিস শিখে পয়সা কামানোর জন্য চাকরি করার জন্য এই ধান্দায় যদি ইলম অর্জন করে তাহলে সেই ব্যক্তি জান্নাতে প্রবেশ করবে না।

  15. যে ব্যক্তি মাথায় এবং দাড়িতে কালো কলপ ব্যবহার করে।বিশুদ্ধ কালো কলপ ব্যবহার করে কোন প্রকার মেহেদী মিক্স নেই সেই ব্যক্তি জান্নাতে প্রবেশ করবে না।

  16. যে ব্যক্তি আমল করে মানুষকে দেখানোর জন্য।

  17. ওয়ারিশ কে বঞ্চিত কারী ব্যক্তি জান্নাতে প্রবেশ করবে না।যে ব্যক্তি তার প্রত্যেকটি সম্পদ থেকে তার ওয়ারিশকে বঞ্চিত করে সে ব্যক্তি জান্নাতে যাবে না।

What's Your Reaction?

like

dislike

love

funny

angry

sad

wow